Breaking News
Home / জাতীয় / আড়ংয়ের সব পণ্য ফিরিয়ে দিলেন কিশোরগঞ্জের এক ব্যবসায়ী

আড়ংয়ের সব পণ্য ফিরিয়ে দিলেন কিশোরগঞ্জের এক ব্যবসায়ী

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বয়কট আড়ং আন্দোলন সক্রিয়মান। এরই সূত্র ধরে কিশোরগঞ্জের স্টেশন রোডস্থ নেয়ামত স্টোরের মালিক মো. মিজানুর রহমান শাহীন তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অর্ডারকৃত আড়ংয়ের সকল পণ্য ফেরত দিয়েছেন।

আওয়ার ইসলামের পক্ষ থেকে এর কারণ জানতে চাইলে ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান শাহীন বলেন, গতরাতে আমি একটি ভিডিও দেখেছি। যেখানে দাড়ি থাকায় একটি ছেলেক চাকুরী দেয়নি ‘আড়ং’ কর্তৃপক্ষ। যা দেখে অবাক হয়েছি। মুসলমানদের এই দেশে আমার নবীর সুন্নতের জন্য চাকরি দেবে না তা হতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, আড়ং কর্তৃপক্ষ নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে দাড়িওয়ালা ব্যক্তিকে চাকরি দিলে তবেই আমরা তাদের পণ্য গ্রহণ করব। অন্যথায় আড়ংয়ের পণ্য বর্জন করলাম।

এদিকে গত দুইদিন আগে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া আট মিনিটের একটি ভিডিওতে দেখা যায় এক যুবক, নিজেকে ইমরান হোসেন ইমন নামে পরিচয় দিয়ে বলছেন, তিনি আড়ংয়ে বিক্রয়কর্মীর একটি নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন, মুখে মাস্ক পরেই তিনি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন, সাক্ষাৎকারগ্রহীতারা তার সাথে সন্তুষ্ট বলে তার মনে হয়েছিল।

কিন্তু এক পর্যায়ে সাক্ষাৎকারগ্রহীতাদের চাহিদা মোতাবেক তিনি মাস্ক খোলেন এবং তার মুখভর্তি দাড়ি প্রকাশিত হয়ে পড়লে সাক্ষাৎকারগ্রহীতারা তাকে বলেন, তাদের নীতিমালা অনুযায়ী তারা দাড়িওয়ালা ব্যক্তিদের বিক্রয়কর্মী হিসেবে নিয়োগ দিতে পারেন না।

‘তারা বললো আপনি যদি ক্লিন শেভ করতে পারেন তাহলে আপনার জবটা আমরা এখানে কনফার্ম করতে পারবো, সাক্ষাৎকারগ্রহীতাদের বক্তব্যের বরাত দিয়ে ভিডিওটিতে বলেন এই যুবক। এরই সূত্র ধরে সারা দেশে ‘বয়কট আড়ং’আন্দোলন সক্রিয়মান।

আরও সংবাদ

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ১৯ হাজার বার কোরআন খতম করবেন ৬৬৬৬ আলেম

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালনে বরাবরের মতোই ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করেছে খুলনা জেলা প্রশাসন। জেলা স্টেডিয়ামে ১৭ মার্চ আসরের নামাজ আদায়ের পর ৬ হাজার ৬৬৬ জন আলেমের সমন্বয়ে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত করা হবে। এ সময় ১৯ হাজার ২০০ বার কোরআন খতম ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন প্রেসব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস- ২০২১ উদযাপন উপলক্ষে আগামী ১৭ মার্চ খুলনা জেলা স্টেডিয়ামে ৬ হাজার ৬৬৬ জন আলেম, সহস্রাধিক বীর মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের মুসল্লি সমবেত হয়ে আসরের নামাজ আদায়পূর্বক দোয়া ও মোনাজাতে শরীক হবেন।

তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে খুলনা মহানগর ও উপজেলাসমূহের এক হাজার ৮০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদরাসা) শিশু শিক্ষার্থী ও এক হাজার ২০০ মসজিদে মুসল্লিসহ পাঁচ লক্ষাধিক লোক জুম অ্যাপের মাধ্যমে মূল অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণের (খুলনা জেলা স্টেডিয়াম) সাথে সংযুক্ত হয়ে দোয়া ও মোনাজাতে শরীক হবেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুপ আলী, প্রেস ক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন, কেইউজের সভাপতি মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগ, কেএমপির অতিরিক্ত উপকমিশনার সোনালী সেন প্রমুখ।

About Muktopata

Check Also

রাতের আঁধারে অভুক্ত প্রতিবন্ধী নারীর বাড়িতে খাদ্য নিয়ে হাজির ইউএনও

শুনেছেন আমি আপনাদের ইউএনও। আপনার জন্য খাবার নিয়ে এসেছি। আপনাকে আর কষ্টে থাকতে হবে না। …