Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / গরুকে ‘জাতীয় পশু’ ঘোষণার সুপারিশ

গরুকে ‘জাতীয় পশু’ ঘোষণার সুপারিশ

ভারতে গরুকে ‘জাতীয় পশু’ হিসেবে ঘোষণার সুপারিশ করেছে দেশটির এলাহাবাদ হাইকোর্ট।

গতকাল বুধবার বিচারপতি শেখর কুমার যাদবের একক বেঞ্চ এই মত প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি অনলাইন।

বিচারপতি শেখরকুমার যাদব গোহত্যা সংক্রান্ত একটি মামলায় অভিযুক্তের জামিনের আবেদনের শুনানিতে বলেন, ‘গরু ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি ভাবে জড়িত।

তাই গরুকেই দেশের জাতীয় পশু করা উচিত।’ শুধু তাই নয় গরুর নিরাপত্তার মৌলিক অধিকার থাকা উচিত বলেও রায় দেন বিচারপতি।

উল্লেখ্য, বিচারক শেখর কুমার যাদবের আদালতে, জাভেদ নামে এক ব্যক্তির জামিনের আবেদনের শুনানি চলছিল। উত্তরপ্রদেশের গরু নিধন প্রতিরোধ আইনের অধীনে আটক করা হয়েছে তাকে।

আবেদনকারীর জামিন প্রত্যাখ্যান করে বিচারপতি শেখর যাদব বলেন, যারা গরুর ক্ষতি করার কথা বলে তাদের শাস্তি দিতে সরকারি আইন করা উচিত।

আরো পরুণ

১৭ বছরে এক ওয়াক্তও নামাজ বাদ দেননি পুলিশ কর্মকর্তা হুমায়ুন

চারদিকে লা’শের পোড়া গন্ধ! নি’হত স্বজনদের আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর’্গের চৌহদ্দি। এ পোড়া গন্ধ কিছুক্ষণ আগেই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের অ’গ্নিকাণ্ডে নি’হত ৪৯টি লা’শ থেকে ভেসে আসছিল।

সজীব গ্রুপের হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের কারখানায় বৃহস্পতিবারের ভ’য়াবহ অ’গ্নিকাণ্ডের ধ্বং’সস্তূপ থেকে লা’শ উ’দ্ধার করে শুক্রবার বিকেলে মর’্গে আনা হয়। ঢামেক মর’্গে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে লা’শ নিয়ে আসার আগে থেকে দুই প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়।মর’দে’হের সুরতহাল রিপোর্ট যেখানে করা হয় সেখানে কেউবা বাইরে অ’পেক্ষা করছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ জে’লার পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত জে’লা প্রশাসকও ছুটে আসেন। চারদিকে আহাজারি, হৈচৈ ও হট্টগোল পরিবেশের মধ্যে বিকেল আনুমানিক ৫টার দিকে এ প্রতিবেদকের চোখ পড়ে মর’্গের চৌহদ্দিতে সুরতহাল কক্ষের লম্বা বেঞ্চিতে বসে নামাজরত একজন পুলিশ সদস্যদের দিকে।

৩০ জন পুলিশ সদস্য সেখানে বসে থাকলেও কারও মুখে কোনো কথা নেই, সবাই চুপচাপ বসে আছে। নামাজ শেষ করেই ওই পুলিশ সদস্য মোবাইল ফোনের অ’পর প্রান্তে থাকা কারও কাছে রূপগঞ্জের ঘটনার সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলেন ও কিছু দিকনির্দেশনা দিলেন। একটু ভালো করে খেয়াল করতেই তার পোশাক ও র্যাংক ব্যাচ দেখে বোঝা গেল তিনি থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মক’র্তা পদমর’্যাদার (ওসি)। একটু সামনে গিয়ে এ প্রতিবেদক নিজের পরিচয় দিয়ে তার পরিচয় জানতে চাইলেন। এহে’ন পরিস্থিতিতেও নামাজরত অবস্থায় তাকে দেখে ভালো লাগলো এ কথা বলতেই তিনি কিছুটা ‘বিব্রত’ হলেন।জানালেন তিনি রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মক’র্তা (ত’দন্ত), নাম হু’মায়ুন আহমেদ।

অ’গ্নিকাণ্ডের কারণে গতকাল থেকে ব্যস্ত সময় কা’টাচ্ছেন।আলাপকালে তিনি জানান, পুলিশের চাকরি করি, কখন কোথায় যাই তার কোনো ঠিক ঠিকানা নাই। সব সময় ব্যস্ত থাকতে হয় বলে বাসায় গিয়ে নামাজ পড়ার সময় হয় না। তাই ডিউটিরত কিংবা অন্যকোনো কাজে যেখানেই থাকেন না কেন, ওয়াক্ত হলে সেখানেই নামাজ পড়ে নেন।

কথা প্রস’ঙ্গে হু’মায়ুন আহমেদ জানান, ২০০৪ সাল থেকে তিনি কখনও নামাজ মিস করেছেন বলে মনে পড়ে না। আলাপ আর একটু জমানোর চেষ্টা করতেই মোবাইল ফোনটি ফের বেজে উঠে। জি স্যার, ইয়েস স্যার বলতে বলতে তিনি মর’্গের দিকে ছুটে যান

About Muktopata

Check Also

তালেবানের অস্থায়ী সরকার গঠন নিয়ে যা বলছে বাংলাদেশ

আফগানিস্তানে তালেবানের অস্থায়ী সরকার গঠন দেশটিতে অর্ন্তভুক্তিমূলক প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের পথকে সুগম করবে বলে আশাবাদ …