Breaking News
Home / ইসলাম / নিখোঁজ হওয়া নিয়ে যা বললেন আবু ত্বহার মা

নিখোঁজ হওয়া নিয়ে যা বললেন আবু ত্বহার মা

মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘ইসলামিক স্কলার’ খ্যাতি পাওয়া রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোড এলাকার বাসিন্দা ইউটিউবার ইসলামিক বক্তা আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনান (৩১) ও তার তিন সফর সঙ্গীর নিখোঁজ হওয়া নিয়ে মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তার পরিবার।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত রাজধানীর গাবতলী এলাকায় ২টা ৩৭ মিনিট থেকে তার কোনো খোঁজ মিলছে না বলে ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়েছে। ওই সময় রংপুর থেকে ঢাকায় যাচ্ছিলেন তিনি। আদনানের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল। তার ফ্যান-ফলোয়াররা হ্যাশট্যাগ দিয়ে তার খোঁজ পাওয়ার জন্য প্রচারণা চালাচ্ছেন।

জিডির তথ্য ধরে অনুসন্ধানে দেখা গেছে, রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডের আহলে হাদিস মসজিদ-সংলগ্ন গলিতে তার পৈত্রিক বাসা। বিয়ের পর স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে শালবন এলাকার চেয়ারম্যানের গলিতে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। আদনানের স্ত্রীর নাম হাবিবা নূর। তিন বছরের একটি মেয়ে ও দেড় বছর বসয়ী একটি ছেলে সন্তান আছে তার।

আদনানের স্ত্রী হাবিবা নূর নয়া দিগন্তকে জানান, ‘আমার স্বামী আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনান বৃহস্পতিবার বিকেলে রংপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। রাত ২টা ৩৭ মিনিটে আমার স্বামীর (আদনান) সাথে আমার শেষ কথা হয়। তখন আদনান ঢাকার গাবতলীর কাছাকাছি ছিলেন। এরপর রাত ৩টায় ফোন দিয়ে তার ফোন বন্ধ পাই আমি। এখন পর্যন্ত তার ফোন বন্ধ। তার কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। আমি তার জীবনহানির শঙ্কা করছি। তাকে জীবিত ফেরত চাই আমি।’

নিখোঁজ আদনানের মা আজেদা বেগম রোববার রাতে নয়া দিগন্তকে জানান, ‘আদনান বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে রংপুর থেকে ঢাকার সাভারের উদ্দেশে রওনা দেয়। রাতে আমার ছেলের মোবাইল ফোন বন্ধ পাই। কিন্তু এখন পর্যন্ত সাভারসহ আত্মীয়-স্বজন, ছেলের বন্ধুদের বাড়িতে সন্ধান করেও তার খোঁজ পাইনি। বিষয়টি জানিয়ে ঢাকার দারুসসালাম এবং মিরপুর থানায় গেলেও কোনো থানাই আমার সাধারণ ডায়েরি বা মামলাগ্রহণ করেনি।’

আদনানের মা আরো বলেন, ‘রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় আমরা একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। কিন্তু আমার ছেলের সন্ধানে পুলিশের কোনো তৎপরতা পাচ্ছি না।’রংপুর মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ নয়া দিগন্তকে জানান, শনিবার আদনানের মা আজেদা বেগম কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। ডায়েরিতে আদনান ছাড়াও তার সফরসঙ্গী হিসেবে আব্দুল মুহিত,

মোহাম্মদ ফিরোজ ও গাড়িচালক আমির উদ্দীনের কথাও বলা আছে। স্ত্রীর সাথে সর্বশেষ তার সাথে যোগাযোগের কথা বলা হয়েছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ৩৭ মিনিটে। তখন তার অবস্থান ছিল গাবতলীর কাছাকাছি।’

ওসি বলেন, ‘আমরা সাথে সাথেই জিডিতে উল্লেখিত থানায় যোগাযোগসহ এ বিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছি, যা এখনো অব্যাহত রেখেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোনো খোঁজ আমরা পাইনি’।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডে আদনানের বাড়িতে এখন অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে। পরিবারের লোকজন অনেকটা ভীতসন্ত্রস্ত। আদনান ও তার সফরসঙ্গীদের এভাবে নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি তারা কোনোভাবেই মানতে পারছেন না।

তার প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, আদনান ইতোমধ্যেই ইসলামিক বক্তব্যের মাধ্যমে সারাদেশে জনপ্রিয়। ইউটিউবে তার বক্তব্য মানুষ শোনেন হুমড়ি খেয়ে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ জনপ্রিয় তিনি।এভাবে তার নিখোঁজ হওয়াকে ভিন্ন চোখে দেখছেন তার প্রতিবেশী ছট্টু মিয়া। তিনি দ্রুত আদনানকে সশরীরে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানান।’

নিখোঁজ আবু ত্বহা মোহাম্মদ আদনানের শ্যালক জাকারিয়া হোসেন নয়া দিগন্তকে জানান, ‘আদনানকে আমরা জীবিত ফেরত চাই। তাকে আমাদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। আমরা আইনগত সকল ব্যবস্থা নিতে চাই। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতাও চান তিনি।

About Muktopata

Check Also

গণিতের শিক্ষক থেকে কাবার ইমাম

মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারামের সম্মানিত ইমাম ও খতিব শায়খ ড. মাহির বিন হামাদ আল মুআকলির …