Breaking News
Home / জাতীয় / সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে শহীদ মিনারে নুরদের বিক্ষোভ

সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে শহীদ মিনারে নুরদের বিক্ষোভ

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র, যুব ও শ্রমিক অধিকার পরিষদ।

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে মঙ্গলবার (১৮ মে) বেলা ৩টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম যেভাবে স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতি তুলে ধরেছেন, সেজন্য তাকে আটক না করে বরং স্বাধীনতা পদক দেয়া উচিত। আমরা রোজিনা ইসলামের দ্রুত মুক্তি চাই। বোন রোজিনাকে বলতে চাই, আমরা আপনার পাশে আছি।’

মোদি বিরোধী আন্দোলনে গ্রেফতারকৃত ছাত্রদের জামিন না দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী অন্ধকার ঘরে কালো বিড়াল খুঁজছেন।’

সমাবেশে ডাকসুর সাবেক ভিপি ও ছাত্র, যুব, শ্রমিক পরিষদের সমন্বয়ক নুরুল হক নুর বলেন, ‘অন্য সাংবাদিকদের মনে ভয়ের সঞ্চার করতেই প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্তা করে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের গ্রেফতারের পর সাংবাদিক নেতাদের ভূমিকার সমালোচনা করেন ডাকসুর এই সাবেক ভিপি।

তিনি বলেন, কয়জন সাংবাদিক নেতা রোজিনার মুক্তির জন্য সোচ্চার হয়েছেন? দেশের একটি প্রথম সারির পত্রিকার একজন সিনিয়র সাংবাদিককে সচিবালয়ে আটকে রেখে হেনস্তা করে এভাবে মামলা দেয়া হলো, কয়জন সাংবাদিক নেতা থানায় এসেছেন? প্রতিবাদ করেছেন? তাই সাংবাদিকদের বলব দলদাস, দলাকানা দালালদেরকে আপনাদের নেতা বানাবেন না। ওরা আপনাদের স্বার্থ বিক্রি করে, যেমনিভাবে বিক্রি করেছে সাগর-রুনি হত্যার ন্যায়বিচার।

সাংবাদিকদের সর্বপ্রকার হয়রানি বন্ধ করে স্বাধীন গণমাধ্যম ও মুক্ত সাংবাদিকতা পরিপন্থী বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানিয়ে অবিলম্বে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবি জানান নুরুল হক নুর।

ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ‘আজকে বাংলাদেশে কেউ নিরাপদ নয়। সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী যারাই অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে, লেখালেখি করে; তাদেরকেই হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে আটক করা হচ্ছে, জেলে নেয়া হচ্ছে।’

সমাবেশ থেকে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের সাথে জড়িত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় আনার দাবিও জানানো হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম আদীব, যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমান, যুব অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব মঞ্জুর মোর্শেদ এবং শ্রমিক পরিষদের আহ্বায়ক আব্দুর রহমান ও সদস্য সচিব আরিফ হোসেন প্রমুখ।

আইএম/এম. জামান

About Muktopata

Check Also

রাতের আঁধারে অভুক্ত প্রতিবন্ধী নারীর বাড়িতে খাদ্য নিয়ে হাজির ইউএনও

শুনেছেন আমি আপনাদের ইউএনও। আপনার জন্য খাবার নিয়ে এসেছি। আপনাকে আর কষ্টে থাকতে হবে না। …