Breaking News
Home / লাইফ স্টাইল / গরমে সাদা পোশাক বেশ আরামদায়ক- কিন্তু কেনো সেটা জানেন কী?

গরমে সাদা পোশাক বেশ আরামদায়ক- কিন্তু কেনো সেটা জানেন কী?

পোশাকবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সাদা রং তাপ শোষণ করে না বলে গরম কম লাগে। 

ভারতীয় ডিজাইনার অনিতা দংরি জানান, গ্রীষ্মকালের জন্য সাদা একটি বিশুদ্ধ ও শান্তির রং।

সাদা রংয়ের স্বচ্ছতা ও আলো-বাতাস চলাচল করতে পারে বলে গরমকালে আরাম অনুভূত হয়।  গরমে তাপের তীব্রতা কম অনুভব করতে সাদা পোশাক পরা উচিত।

শত শত বছর ধরেই ফ্যাশনের ক্ষেত্রে সাদা পোশাকের কদরই আলাদা।  ভারতীয় ডিজাইনার শ্রুতিস সঞ্চিতি বলেন, “সম্পূর্ণ সাদা পোশাক পরার জন্য ভালো শারীরিক গঠনের প্রয়োজন।

যদি শারীরিক গড়ন সুন্দর হয় তবে এই রংয়ের পোশাকে আপনি পৃথিবী মাতিয়ে রাখতে পারবেন।”  তবে সাদা পোশাকে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে কিছু বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখা প্রয়োজন- 

* ভিন্ন ছাপের সুতি কাপড়ের সঙ্গে পাতলা নেটের কাপড় ব্যবহার করে দুই স্তরের পোশাক বানাতে পারেন।  * আপনার সঙ্গে মানানসই এমন ‘ইনার’ ব্যবহার করা ভালো। পোশাকের আকর্ষণ বাড়ানোর জন্য রঙিন যেমন- বিপরীত বা সম্পূরক রং ব্যবহার করতে পারেন। 

* পোশাকের রংয়ের বিপরীত রংয়ের স্কার্ফ, কানের দুল বা বেল্ট ব্যবহার করুন।  পবিত্র ও মার্জিত: সাদা রংয়ের যে কোনো তন্তু যেমন- শিফন, জর্জেট, এবং সিল্ক ইত্যাদি পোশাকে পবিত্রতা ও মার্জিতভাব ফুটে ওঠে। 

কর্মক্ষেত্রে: কোনো নির্দিষ্ট পোশাকের কথা উল্লেখ না থাকলে পরতে পারেন সাদা রংয়ের শার্ট। কিংবা টপস। আর ভিন্ন রংয়ের পোশাকের উপর চাপাতে পারেন সাদা কটি।

আরো পড়ুন

ছোট্ট বন্ধুরা, তোমরা তো জানোই ঋতুবদলের সঙ্গে সঙ্গে পোশাকের বদল ঘটে। শীতকালে আমরা পরি ইয়া ভারী ভারী জ্যাকেট বা সোয়েটার, অন্য জামাগুলো হয় ফুল হাতা। গরম বা গ্রীষ্ম এলেই আবার এসব পোশাক গায়ে দেয়া যায় না, ঘেমে একাকার হয়ে যাই। তাই সে সময় পরি সব হাফ হাতা আর পাতলা জামাগুলো। তবে এর বাইরেও পোশাকের বেলায় কিছু নিয়মকানুন আছে, যা কিনা বিজ্ঞানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলে। কেউ কি খেয়াল করেছো- শীতকালে কালো কাপড় পরে বেশি আরাম পাই আমরা, আর গরমের সময় সাদা কাপড়?

এ বিষয়টির পেছনে দায়ী হলো- রঙের তাপ শোষণ ও প্রতিফলন ক্ষমতা। তবে সব রঙেরই কিন্তু এক সমান তাপ শোষণ ও প্রতিফলন ক্ষমতা হয় না; কোনোটা তাপ শোষণ করে বেশি, আবার কোনোটা কম। শোষণের মতো প্রতিফলনের বেলাতেও আছে কম-বেশি। কোনো রঙ কম তাপ শোষণ করেও প্রতিফলন করে বেশি, আবার কোনো রঙের বেলায় তার উল্টো; মানে তাপ শোষণ করে বেশি, প্রতিফলন সে তুলনায় কম। কোনো বস্তুতে আলো পড়ে ফিরে না এলে, তাকে বলা হয় শোষণ; আর যদি আলো বাধা পেয়ে ফিরে আসে, তবে সেটা প্রতিফলন। সূর্যের আলো যে সাতটি রঙ মিলিয়ে তৈরি হয়, কালো কাপড় তার সবগুলোই শোষণ করতে পারে। যার জন্য অন্য রঙগুলোর চেয়ে কালো কাপড়ের সূর্যের আলো থেকে তাপ শোষণের পরিমাণটা বেশি,তাই তাড়াতাড়ি গরম হয়ে ওঠে ।

এদিকে তাপ প্রতিফলন করার পরিমাণটা কালো কাপড়ের বরাবরই কম, যে জন্য কাপড়ে তাপ জমে গরম হয়েই থাকে কাপড়টা; আর সে কাপড় গায়ে জড়িয়ে থাকায় গরম থাকে আমাদের শরীরও, যা শীতকালে খুব আরামদায়ক। সাদা কাপড়ে আবার উল্টো নিয়ম কাজে দেয়। সবচেয়ে কম তাপ শোষণ করে এটি, অথচ প্রতিফলন করে সে তুলনায় বেশি। যার জন্য সাদা কাপড়ে খুব একটা তাপ জমার সুযোগ নেই; সাদা কাপড় গায়ে জড়ানো থাকলে সে সুবিধাটাই পাই আমরা গরমকালে।

About Muktopata

Check Also

দুধের জন্য মৃত মায়ের বুকে শুয়ে শিশুর হাহাকার

হাসপাতালের বেডে পড়ে আছে মায়ের লাশ। আর মৃত মায়ের বুকের ওপর মাথা রেখে শুয়ে আছে …